ঢাকারবিবার , ২ অক্টোবর ২০২২
  1. অপরাধ,দূর্নীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. কৃষি সংবাদ
  4. ক্যাম্পাস
  5. খেলাধুলা
  6. গ্রামবাংলা
  7. জাতীয়
  8. ধর্ম,সাহিত্য
  9. ফিচার
  10. ফেসবুক কর্নার
  11. বিনোদন
  12. মুক্তমত
  13. রকমারি
  14. রাজনীতি
  15. লাইফস্টাইল
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পীরগঞ্জে নেই কোন গণশৌচাগার,বিপাকে সাধারণ মানুষ।

অনলাইন ডেস্ক
অক্টোবর ২, ২০২২ ৩:৩৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মোঃ পারভেজ হাসান ,পীরগঞ্জ ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি
 ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে নেই কোন গণশৌচাগার,বিপাকে দূরদূরান্ত থেকে আসা সাধারণ মানুষ। ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ শহরে বিভিন্ন উপজেলা ও গ্রামগঞ্জ থেকে প্রতিদিন যাতায়াত করে প্রায় ৩ লাখ মানুষ। এই উপজেলাটি ঠাকুরগাঁও জেলা শহরের পরেই অবস্থান হওয়ায় এখানে শিক্ষা, চিকিৎসা, ব্যবসাসহ বিভিন্ন কাজে গ্রামগঞ্জের মানুষ সেবা নিতে আসে।
এ উপজেলায় তিনটি বাসস্ট্যান্ড রয়েছে  শহরের বাইরের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ গন্তব্যস্থলের যানবাহনে ওঠানামা করে। অথচ এসব এলাকার একটিতেও গণশৌচাগার নেই। এতে বিপাকে পড়তে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। সব চাইতে দুর্ভোগ পোহাতে হয় মহিলা যাত্রীদের যারা দূর দূরান্ত থেকে বিভিন্ন যানবাহনে যাতায়াত করে। পুরুষরা কোনোভাবে খোলা জায়গায় টয়লেট করতে পারলেও নারী ও শিশুরা ব্যবহার করতে পারছেন না। এতে তারা বাইরে বের হয়ে অস্বস্তিতে পড়েন। নগরবাসীর পক্ষ থেকে গণশৌচাগার  স্থাপনের দাবি উঠলেও কার্যকর সমাধান হচ্ছে না।
পীরগঞ্জ পৌর কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শহরের অন্যতম ব্যস্ততম স্থান পীরগঞ্জ- রাণীশংকৈল বাসস্ট্যান্ড এলাকা। বিভিন্ন উপজেলার মানুষ এ সড়ক হয়েই বাসযোগে বা বিভিন্ন যানবাহনে করে উপজেলা শহরে প্রবেশ করে। প্রতিদিন এ এলাকা দিয়ে চলাচল করেন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী, সরকারি-বেসরকারি চাকরিজীবী, ব্যবসায়ী ও রোগীসহ হাজারো মানুষ।কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ এলাকাটিতে কোন গণশৌচাগার নেই প্রয়োজনে অনেকে আশপাশের হোটেল-রেস্তোরাঁর শৌচাগার ব্যবহার করলেও অধিকাংশই সে সুযোগ পায় না।
অন্যদিকে গ্রামগঞ্জের মানুষ উপজেলা শহরে এসে বেশ সমস্যার মধ্যে পড়ে। পার্শ্ববর্তী রাণীশংকৈল উপজেলার অনেক মানুষও এ এলাকা দিয়ে ঠাকুরগাঁও শহরে ব্যবসাসহ বিভিন্ন কাজে যাতায়াত করে। প্রতিদিন শত শত যাত্রী এ বাসস্ট্যান্ড দিয়ে বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করে। অথচ গণশৌচাগার নেই।এ অবস্থায় জনবহুল স্থানগুলোয় শহরের বাইরে থেকে আসা মানুষকে বিপাকে পড়তে হয়।
এ বিষয়ে রাণীশংকৈল উপজেলার মিরডাঙ্গী বাজারের হাফিজুর জানান,দূর থেকে যানবাহনে আসলে প্রসাব পায়খানা করার ইচ্ছা হলে অনেক কষ্ট হয়।বর্থপালিগাঁও গ্রামের আব্দুল করিম জানান, গণশৌচাগার না থাকাই অনেক কষ্ট হয়। যদি পৌরসভা থেকে একটি গণশৌচাগার তৈরি করা হয় মানুষ অনেক কষ্ট থেকে মুক্তি পাবে।
পীরগঞ্জ  পৌরসভা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, পশ্চিম চৌরাস্তা বটতলার আসে পাশে গণশৌচাগার নেই। তবে পূর্ব চৌরাস্তার মসজিদে গণশৌচাগার আছে।
পীরগঞ্জ পৌরসভার  মেয়র ইকরামুল হক শৌচাগার না থাকায় দুর্ভোগের কথা স্বীকার করে জানান, পশ্চিম চৌরাস্তা বা বটতলার আসে পাশের এলাকায় জায়গা পাওয়া গেলে একটি আধুনিক গণশৌচাগার নির্মাণের পরিকল্পনা আছে। জায়গা খোঁজা হচ্ছে। কেউ জায়গা দিলে দ্রুত কাজ করা যাবে।

এই সাইটে প্রতিনিধির পাঠানো নিজস্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা আইনত দন্ডনীয় অপরাধ।