কালীগঞ্জে যুব ফোরাম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগে ফ্রি রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচি পালিত


অনলাইন ডেস্ক প্রকাশের সময় : জানুয়ারি ২৫, ২০২৩, ১০:০৫ পূর্বাহ্ণ /
কালীগঞ্জে যুব ফোরাম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগে ফ্রি রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচি পালিত

লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জে  যুব ফোরাম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগে ১দিনব্যাপী ফ্রি রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচি পালিত হয়েছে

২২শে জানুয়ারী ( রবিবার) সেবা নীর ও বাংলাদেশ ব্লাড ব্যাংক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এর সহযোগিতায় উপজেলার ৫নং চন্দ্রপুর ইউনিয়নের লতাবর জুনিয়র স্কুল মাঠে এ কর্মসুচি পালিত হয়।

 আমরা করবো রক্তদান, বাঁচবে জীবন হাঁসবে প্রাণ , এই স্লোগান কে সামনে রেখে সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ফ্রি রক্তের গ্রুপ নির্ণয়ের ক্যাম্পেইনটি চলে। কর্মসূচির মাধ্যমে মহল্লার প্রায় ৭০০ শতাধিক শিক্ষার্থী, নারী, পুরুষ, শিশু ও বয়োবৃদ্ধের রক্তের গ্রুপ নির্ণয় এবং রক্তদান বিষয়ক সচেতনতা বিবৃতি প্রদান করা হয়।

ক্যাম্পেইনটি পরিচালনা করেন যুব ফোরাম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ রাকিব মিয়া (হারুন) সহ-সভাপতি মোঃ ইসমাইল হোসেন, এম এ সাঈদ, শোয়েব হোসেন (মানিক) মোঃ রাকিবুল ইসলাম (রাকিব) সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ময়নুল ইসলাম প্রমুখ।

এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন, সিনিয়র সেচ্ছাসেবী আখেরুজ্জামান আখের, মোঃ নুর ইসলাম, আব্দুর রহিম, হাবিবুর রহমান জাকির, মোছাঃ মোনালিসা সুইট,
মোছাঃ রুমানা আক্তার রুমি, বিদ্যালয়টির শিক্ষক, শিক্ষিকা ছাত্র ছাত্রী সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

সুশীল সমাজের বয়োজ্যেষ্ঠ সামসুল আলম বলেন,যে রক্ত দিতে পারে তার আনুগত্য বা বিশ্বাস নিয়ে কোন প্রশ্ন করা যায় না। রক্তদান খুব কঠিনতম একটা কাজ। যে কখনও রক্তদান করেনি সে এটা উপলব্ধি করতে পারবে না। আমি এটা করেছি আমি বুঝি। তোমরা নিঃসন্দেহে একটা ভালো কাজ করছো। আর রক্তদানের মাধ্যমে মানুষের সাথে ভালো সম্পর্ক তৈরি হয়। আর এই ভালো সম্পর্কটা তোমাদের জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে কাজে লাগবে।’

সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোঃ মজনু মিয়া জানান, স্বেচ্ছায় রক্তদানে শরীরের কোনো ক্ষতি হয় না, এই বার্তাটি আমরা সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতেই এ কর্মসূচি গ্রহণ করেছি। জনমনে এ সচেতনতা সৃষ্টি করতে পারলেই আমাদের স্বপ্ন পূরণ হবে। শহীদের রক্ত দিয়ে অর্জিত এই মাতৃভূমির বুকে রক্তের অভাবে আর একটি মানুষেরও জীবনের বাতি যেন নিভে না যায়।’
মানুষকে স্বেচ্ছায় রক্তদানে উৎসাহিত করতে আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা। এ ছাড়া জরুরী প্রয়োজনে প্রতিটি মানুষের রক্তের গ্রুপ জানা থাকা দরকার।’
এমন একটি মহৎ কাজ আমরা ভালোভাবে শেষ করতে পারায় ভালো লাগছে। সামনের দিনগুলোতে সবাই আমাদের পাশে থাকবেন, এই আশাবাদ ব্যক্ত করছি।

সিনিয়র সেচ্ছাসেবী মোঃ আল মিসবাহ বলেন, অনেকে সময়ের জন্য রক্ত পরীক্ষা করতে পারেন না। যে কারণে জরুরী প্রয়োজনে রক্ত দিতে পারে না। তাই রক্তের গ্রুপ নির্ণয়ের জন্য আমাদের এই আয়োজন। কারণ রক্তের গ্রুপ জানা থাকলে প্রয়োজনের সময় দ্রুত ডোনার পাওয়া যাবে। আমাদের এই সেবা কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে

উল্লেখ্য, সংগঠনটি সামাজিক ও মানবিক কর্মকাণ্ড পালন করে লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার পাশাপাশি সারা দেশের সাধারণ মানুষের ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছে।